Letest Update

বাংলাদেশে স্মার্টফোনের দামের সাথে বাড়ছে মোবাইল ব্যাবহারে খরচ !!





২০১৯-২০ অর্থবছরের জাতীয় বাজেটে স্মার্টফোন আমদানিতে শুল্ক বৃদ্ধি করার প্রস্তাব করা হয়েছে। সেইসাথে আজ মধ্যরাত থেকেই বাড়ানো হচ্ছে মোবাইল ফোনের সিম বা রিমের ব্যবহারে সম্পূরক শুল্ক।

বৃহস্পতিবার অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বাজেট ঘোষনার পরপরই মোবাইল ফোন অপারেটরদের এই অতিরিক্ত শুল্ক আরোপের নির্দেশ দেয় জাতীয় রাজস্ব বোর্ড। বর্তমানে গ্রাহকরা সরকারকে সম্পূরক শুল্কের পাশাপাশি ১৫ শতাংশ ভ্যাট এবং ১ শতাংশ সারচার্জ দিয়ে আসছে। এবারের বাজেটে পূর্বে বিদ্যমান ভ্যাট এবং সারচার্জ এর সাথে যুক্ত হল ৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক। এতে করে সর্বমোট শুল্কের হার দাঁড়াবে ২৭ শতাংশে। দেশে বর্তমানে মোবাইল ফোন ব্যাবহারকারি গ্রাহক প্রায় ১০ কোটি। নতুন এই শুল্ক আরোপের ফলে সিম বা রিম ব্যাবহার করে যেকোনো সেবা নেওয়ার উপর এই চার্জ প্রযোজ্য হবে।

এদিকে এবারের বাজেটে মোবাইল ফোনকে দুইটি ক্যটাগরিতে ভাগ করে পৃথক আমদানী শুল্ক নির্ধারণ করা হয়েছে। ফিচার ফোন সচরাচর দেশের নিম্নআয়ের জনগোষ্ঠী ব্যবহার করেন। এসব কমদামী ফোনের উপর আরোপকৃত শুল্ক ১০ শতাংশ স্থির রয়েছে। অন্যদিকে স্মার্টফোন দেশের বিত্তবান লোকজন ব্যবহার করেন। তাই এই বাজেটে স্মার্টফোনের ওপর আমদানী শুল্ক শতকরা ১০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

স্মার্টফোন তৈরীর প্রধান উপাদান ট্রানজিস্টর এবং ক্রিস্টাল ডায়োডের আমদানী শুল্ক শতকরা পাঁচ শতাংশ থেকে কমিয়ে এক শতাংশ প্রস্তাব করা হয়েছে। যা স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানসমূহকে দেশে স্মার্টফোন তৈরিতে আরো উৎসাহিত করবে। অপরদিকে স্মার্টফোনের সিমকার্ড খোলার পিনের ওপর আমদানী শুল্ক শতকরা ২৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১০ শতাংশ রাখার প্রস্তাব রয়েছে এই বাজেটে।

No comments